, , ,

Facebook
Twitter
LinkedIn
WhatsApp

ক্যারিয়ারের সোনালী সময়টা ক্যাসেমিরো কাটিয়েছেন ক্লাব ফুটবলের ইতিহাসের সেরা ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদের জার্সিতে। এই ক্লাবে খেলে তিনি যেমন হয়ে উঠেছেন বিশ্বসেরাদের একজন তেমন তার সময়ে রিয়াল মাদ্রিদও কাটিয়েছে এক স্বর্ণালি সময়। ২০১৩ সালে রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে এই ব্রাজিলিয়ানের অভিষেকের পর ক্যাসেমিরো ও রিয়াল মাদ্রিদ এক সাথে জুটি বেধে জয় করেছে ৫ টি চ্যাম্পিয়নস লীগ, ৩ টি ক্লাব বিশ্বকাপ, ৩ টি লা লিগা ট্রফি, ৩ টি উয়েফা সুপার কাপ, ৩ টি সুপার কোপা ড্যা স্প্যানিয়া এবং ১ টি কোপা ডেল রে!

সাদা জার্সিতে ক্যারিয়ার রাঙাতে থাকা ক্যাসেমিরো হঠাৎ করেই যখন ২০২২ সালে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে যোগ দেয়ার ঘোষণা দেন তখন সেটাকে মেনে নেয়াই ছিলো মাদ্রিদ ভক্তদের জন্য এক কষ্টসাধ্য বিষয়। সবকিছু ঠিকভাবে চলতে থাকার পরও ক্যাসেমিরো কেন ক্লাব ছাড়তে চাচ্ছেন সেই উত্তরটা খুঁজে পাওয়া সেনো পরিণত হয়েছিলো এক দুর্লভ বস্তুতে। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে রিয়াল মাদ্রিদ প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে খোলামেলাভাবেই জানিয়েছেন কেন তিনি ক্লাব ছাড়লেন। রিয়াল মাদ্রিদ ছাড়ার প্রসঙ্গে ক্যাসেমিরো জানান, “প্যারিসে ১৪ তম চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতার পর আমি রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। আমি নতুন চ্যালেঞ্জ নিতে চেয়েছিলাম কারণ এখানে আমি সম্ভাব্য সবকিছুই জিতেছি। আমি একটি নতুন লীগ ও একটি নতুন ভাষা চেয়েছিলাম কিন্তু এটা সহজ ছিল না, ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ আমাকে যেতে দিতে চাননি। তিনি আমার সাথে রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে যাওয়ার ব্যাপারে কোনো কথাই বলতে চাননি। তাই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের আসার অনুমতি নেয়ার জন্য আমার মাদ্রিদ বোর্ডের অন্য সদস্যদের সাথে কথা বলতে হয়েছিলো”

নিজের ইচ্ছায় রিয়াল মাদ্রিদ ছাড়ার ঘোষণা দেয়ার পরও ক্যাসেমিরো এক পর্যায়ে সন্দিহান হয়ে পড়েছিলেন নিজের সিদ্ধান্ত নিয়ে এবং এর কেন্দ্রবিন্দুতে ছিলেন কোচ কার্লো আনচেলত্তি। ক্যাসেমিরো বলেন, “ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সাথে চুক্তি সম্পন্ন করে আমি যখন আনচেলত্তির অফিসে প্রবেশ করি তখন আনচেলত্তি কান্না শুরু করেন এবং আমি তাকে জিজ্ঞাসা করলাম ‘কেন কাঁদছো?’ উত্তরে কার্লো বলেন, “আমি জানি না, আমি শুধু জানি আমি তোমাকে ভালোবাসি এবং কখনোই চাইনি তুমি চলে যাও’, তার এই কথা শুনে আমি সন্দিহান হয়ে পড়েছিলেন যে আমি সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছি কিনা”

ক্যাসেমিরোর রিয়াল মাদ্রিদ ত্যাগের ঘোষণার পর কান্নায় ভেঙে পড়েন কার্লো আনচেলত্তি!

মাদ্রিদ ছেড়ে যাওয়ার পর এই দলের খেলোয়াড়দের সাথে আগের মতো যোগাযোগ হয় কিনা এমন প্রশ্নের উত্তরে ক্যাসেমিরো বলেন, “অবশ্যই! আমি এখনও মড্রিচ ও ক্রুসের সাথে কথা বলি। তারা আমার কাছে সতীর্থদের চেয়ে বেশি, পরিবারের মতো, আমার বন্ধু”

ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে চ্যাম্পিয়নস লিগে রিয়াল মাদ্রিদের জয়ের ম্যাচ নিয়ে নিজের অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে ক্যাসেমিরো বলেন, “আমি রিয়াল মাদ্রিদের একজন বড় ভক্ত তাই অন্য সব মাদ্রিদিস্তাদের মতোই এই ম্যাচে আমিও মনস্তাত্ত্বিক চাপে ভুগেছি। রিয়াল মাদ্রিদ জয় পাওয়ায় আমি দারুণ খুশি হয়েছে। জয় রিয়াল মাদ্রিদের ডিএনএ-তে রয়েছে”

শেয়ার করুন

আরো পড়ুন

ইউরোপীয় ক্লাব ফুটবলের শীর্ষ আসর চ্যাম্পিয়নস লিগ মানেই তারায় তারায় টক্কর, সেই তারার লড়াই যদি হয় বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটি […]

Scroll to Top